প্রয়াত অভিনেতা তাপস পাল | Filmy Network

প্রয়াত অভিনেতা তাপস পাল
প্রয়াত বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনপ্রিয় অভিনেতা এবং প্রাক্তন সাংসদ তাপস পাল (Tapas Pal)। দীর্ঘদিন ধরে স্নায়ুর রোগে ভুগছিলেন এই তারকা। কথা বলা ও চলা-ফেরায় সমস্যা ছিল। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার ভোররাতে মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে তাপস পাল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বাংলা টলিপাড়ায়।

১৯৫৮ সালে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন বাঙালি অভিনেতা তাপস পাল। মাত্র ২২ বছর বয়সে পরিচালক তরুণ মজুমদারের ‘দাদার কীর্তি’ ছবি দিয়ে পা রাখেন অভিনয় জগতে। প্রশংসা পায় তাঁর অভিনয়। তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। এর পর ‘গুরুদক্ষিণা‘, ‘সাহেব‘, ‘ভালবাসা ভালবাসা‘ -র মত একের পর এক হিট ছবি বাংলার সিনেমাপ্রেমীদের উপহার দিয়ে জায়গা করে নেন তাদের মনের মনিকোঠায়।

মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল কংগ্রেসের হাত ধরে ২০০১ সালে সক্রিয় রাজনীতিতে পা রাখেন অভিনেতা তাপস পাল। অভিনেতা তাপস পালের রাজনৈতিক কেরিয়ারও ছিল ঈর্ষণীয়। ২০০১ এবং ২০০৬ সালে পরপর দুবার তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে জিতে তিনি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আস্থাভাজন হন। ২০০৯ এবং ২০১৪ সালে পরপর দুবার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন তাপস পাল। 

তবে ২০১৬ সালের শেষদিকে তাপস পালকে রোজ ভ্যালি চিটফান্ড কাণ্ডে গ্রেপ্তার করা হয়। দীর্ঘদিন জেলে বন্দি থাকার পর তিনি জামিন পান। মূলত তখন থেকেই বিভিন্ন শারীরিক অসুস্থতা ঘিরে ধরে তাঁকে। চলতে থাকে চিকিৎসা। রাজনীতি থেকেও সন্ন্যাস নিয়ে নেন। তাপস পালের অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ পরিবার পরিজনরা।

Leave a Comment